আবারো শুরু হয়েছে প্রো-অফার! নামমাত্র মূল্যে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স করুন ঘরে বসেই। বিস্তারিত

Pay with:

অনুবাদ চর্চা : The Daily Star সম্পাদকীয়র (পার্ট – 45 )

Vulnerability of minority communities
সংখ্যালঘু সম্প্রদায়সমূহের বিপদাপন্নতা
We are failing in our duty
আমরা আমাদের দায়িত্ব পালনে ব্যর্থ হচ্ছি।
.
.
.
If it is true that a nation’s greatness is measured by how it treats its most vulnerable members, we are very far from it.
যদি সত্যিকারে একটি জাতির মহত্ত্ব সেই জাতি দ্বারা সমাজের দুর্বল সদস্যদের কিভাবে দেখা হচ্ছে তার ভিত্তিতে পরিমাপ করা হয় , তাহলে বলা যায় আমরা সেখানে হতে অনেক দূরে ।

.
From a report published by a group representing the minority communities, the Hindu-Boudhha-Christian Oikya Parishad, the picture we get of the state of the three communities in the country is reprehensible, to say the least.
সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের একটি সংগঠন হিন্দু-বৌদ্ধ-খৃষ্টান ঐক্য পরিষদ কর্তৃক প্রকাশিত একটি প্রতিবেদেন থেকে আমরা জানতে পারি দেশে তিনটি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের বর্তমান অবস্থা একেবারেই শোচনীয়।
.
24 people belonging to the minority communities have been murdered, 25 raped, and more than 1500 families affected, in 2015 alone.
শুধু ২০১৫সালেই সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের মধ্যে ২৪জনকে হত্যাকরা হয়েছে, ২৫জন ধর্ষিত হয়েছে , এবং ১৫০০এর অধিক পরিবার নানাভাবে নির্যাতনের শিকার হয়েছে।
.
What is a matter of concern is that it is evident from the said report, which is a collection of the accounts of minority persecution appearing in various newspapers, that they are not victims of the law and order state that prevails in the country.
বিভিন্ন পত্রিকায় প্রকাশিত সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের উপর নির্যাতনের হিসাবের ভিত্তিতে প্রকাশিত প্রতিবেদনটি হতে সুষ্পষ্ট ভাবে বোঝা যায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়সমূহ দেশে বিদ্যমান আইন শৃঙ্খলার জন্য শোষণের শিকার হয় না ; যেটি উদ্বেগের বিষয়।

In fact their marginalised position in society has been exploited and they have been deliberately targeted as a consequence of that.
প্রকৃত পক্ষে সমাজে নিম্ম অবস্থানই তাদের শোষণের জন্য দায়ী ফলে তারা সুচিন্তিত ভাবে শোষণের সহজ লক্ষ্যবস্তুুতে পরিণত হয়েছে।

These communities have been victimised for their property, and there have been cases of forced conversion too.
এইসব সম্প্রদায়সমূহ তাদের সম্পত্তির জন্য শোষণের শিকার হয়েছে এবং জোর করে ধর্মানত্বরিত করার ঘটনাও আছে।
.
What is even more galling is that the main perpetrators, allegedly, are those that are linked with the powerful and the political quarters.
অত্যন্ত দু:খের বিষয় এই যে এইসব ক্ষেত্রে প্রধান দুষ্কৃতকারীদের ক্ষমতাধর ব্যক্তি ও রাজনৈতিক দলের সাথে আতাঁত রয়েছে।

And this is one of the reasons why the police are reluctant to take the complaints or the reports seriously.
এবং কেন পুলিশ এইসব মামলা নিতে ও জোরালোভাবে রির্পোট করতে অনীহা প্রকাশ করে তার জন্য এটি অন্যতম একটি কারণ ।

Can we really call ourselves civilised if the minorities are made to suffer while the state fails to take action to ensure their safety and security?
সরকার যদি সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের জীবন ও মালের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিতে ব্যর্থ হয় ফলে তারা যদি শোষণ হতেই থাকে তাহলে আমরা কি সত্যিকারে আমাদের সভ্য জাতি হিসেবে বলতে পারি।
.
we suggest that the government take immediate cognizance of the report and initiate urgent action to bring to book the perpetrators and make examples of them to restore the confidence of these communities.
আমরা সরকারকে প্রতিবেদনটিকে জরুরী ভিত্তিতে গুরুত্ব দেওয়ার জন্য এবং দুষ্কৃতকারীদের বিচারের মাধ্যমে শাস্তি দেওয়ার জন্য প্রযোজনীয় প্রদক্ষেপ গ্রহণের জন্য এবং এইসব সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের সরকারের প্রতি আস্থা ফিরিয়ে আনতে দৃষ্টান্ত স্থাপনের জন্য আহ্বান জানায়।

 

   
   

0 responses on "অনুবাদ চর্চা : The Daily Star সম্পাদকীয়র (পার্ট - 45 )"

Leave a Message

Certificate Code

সবশেষ ৫টি রিভিউ

eShikhon Community
top
© eShikhon.com 2015-2022. All Right Reserved