আবারো শুরু হয়েছে প্রো-অফার! নামমাত্র মূল্যে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স করুন ঘরে বসেই। বিস্তারিত

Pay with:

একতরফা দাখিলা পদ্ধতি

 

একতরফা দাখিলা পদ্ধতি

বিষয়াবলী:

 

একতরফা দাখিলা পদ্ধতি:

কাজের পরিমাণ কমানোর জন্য কোন হিসাব ব্যবস্থায় দুতরফা দাখিলা পদ্ধতির ত্রুটিপূর্ণ বা আংশিক প্রয়োগ ঘটলে তাকে একতরফা দাখিলা পদ্ধতি বলে। একতরফা দাখিলা পদ্ধতি মূলত একতরফা, দুতরফা এবং বিনা দাখিলার সংমিশ্রণ। ( Single entry system is nothing but an admixture of single entry, double entry and no entry.)

 

দুতরফা পদ্ধতি : লেনদেনকে ডেবিট-ক্রেডিটে বিশ্লেষণ করে লিপিবদ্ধ (জাবেদা), শ্রেণীবদ্ধ (খতিয়ান), ত্রুটি নির্ণয় (রেওয়ামিল) করে ব্যবসায়ের আর্থিক ফলাফল (ক্রয়-বিক্রয় ও লাভ-ক্ষতি হিসাব) ও আর্থিক অবস্থা (উদ্বৃত্তপত্র) নির্ণয় করার পদ্ধতিকে দুতরফা দাখিলা পদ্ধতি বলে।

 

প্রকারভেদ:

 

বিশুদ্ধ একতরফা দাখিলা পদ্ধতি:

এই পদ্ধতিতে শুধু ব্যক্তিবাচক হিসাব রাখা হয়। কিন্তু নামিক ও সম্পত্তি বাচক হিসাব রাখা হয় না।

  • সাধারণ একতরফা দাখিলা পদ্ধতি

এই পদ্ধতিতে ব্যক্তিবাচক ও নগদান হিসাব রাখা হয়।

  • উপ একতরফা দাখিলা পদ্ধতি

এই পদ্ধতিতে ব্যক্তিবাচক, নগদান হিসাব ও কিছু সহকারী বই রাখা হয়।

 

প্রারম্ভিক ও সহকারী মূলধন নির্ণয়:

একতরফা দাখিলা পদ্ধতিতে মূলধন হচ্ছে নীট সম্পদের পরিমাণ। একটি নির্দিষ্ট তারিখে কারবারের দায় মিটানোর পর যে নীট সম্পদ বিদ্যমান থাকে তাকে মূলধন বলে।
একতরফা দাখিলা পদ্ধতিতে প্রারম্ভিক ও সমাপনী মূলধন পরিমাপ করে লাভক্ষতি নির্ণয় করা হয়।
কিন্তু কোন নির্দিষ্ট হিসাব বইতে প্রারম্ভিক মূলধন ও সমাপনী মূলধনের পরিমাণ লিপিবদ্ধ থাকে না। তাই প্রারম্ভিক মূলধন ও সমাপনী মূলধন নির্ণয় করে নিতে হয়

 

প্রারম্ভিক মূলধন ও সমাপনী মূলধন নির্ণয়ের নিয়ামাবলি:

প্রারম্ভিক মূলধন = প্রারম্ভিক সম্পত্তি – প্রারম্ভিক দায়
সমাপনী মূলধন = সমাপনী সম্পত্তি – সমাপনী দায়

  • গাণিতিক সমস্যার ক্ষেত্রে নিম্নোক্ত উপায়ে প্রারম্ভিক ও সমাপনী মূলধন নির্ণয় করতে হয় :
    • প্রারম্ভিক মূলধন = সমাপনী মূলধন+উত্তোলনের সুদ+নীট ক্ষতি -অতিরিক্ত মূলধন-মূলধনের সুদ-নীট লাভ
    • সমাপনী মূলধন = প্রারম্ভিক মূলধন+অতিরিক্ত মূলধন+মূলধনের সুদ+নীট লাভ-উত্তোলন -উত্তোলনের সুদ-নীট ক্ষতি

একতরফা দাখিলা পদ্ধতিতে নামিক হিসাব অর্থাৎ আয়-ব্যয় হিসাব সমূহ সংরক্ষণ করা হয় না। ফলে সঠিক ভাবে আর্থিক ফলাফল /লাভক্ষতি নিরূপণ করা হয় না। এ পদ্ধতিতে সমাপনী মূলধন মূলধন ও প্রারম্ভিক মূলধন তুলনা করে লাভক্ষতি নির্ণয় করা হয়।

 

অসম্পূর্ণ পদ্ধতিতে লাভ ক্ষতি নির্ণয়ের নিয়মাবলী :

বিবরণ বিবরণ
প্রারম্ভিক মূলধন
অতিরিক্ত মূলধন
মূলধনের সুদ
জেরঃ নীট লাভ



সমাপনী মূলধন
উত্তোলন
উত্তোলনের সুদ
জেরঃ নীট ক্ষতি



  • লাভ : সমাপনী মূলধন+ উত্তোলন+উত্তোলনের সুদ-প্রারম্ভিক মূলধন-অতিরিক্ত মূলধন-মূলধনের সুদ
  • ক্ষতি : প্রারম্ভিক মূলধন+অতিরিক্ত মূলধন+মূলধনের সুদ-সমাপনী মূলধন-উত্তোলন-উত্তোলনের সুদ

হিসাববিজ্ঞান সকল অধ্যায় দেখতে এখানে যান

   
   

1 responses on "একতরফা দাখিলা পদ্ধতি"

Leave a Message

Certificate Code

সবশেষ ৫টি রিভিউ

eShikhon Community
top
© eShikhon.com 2015-2022. All Right Reserved