আবারো শুরু হয়েছে প্রো-অফার! নামমাত্র মূল্যে ফ্রিল্যান্সিং কোর্স করুন ঘরে বসেই। বিস্তারিত

Pay with:

(৩১/০১/১৬) প্রথম আলোর সম্পাদকীয় পাতা থেকে

প্রথম আলোর সম্পাদকীয় পাতা থেকেঃ

সড়কে আর কত মৃত্যু?
how many deaths are on the road?

গুরুতর জাতীয় সমস্যা হিসেবে বিবেচনায় নিন।
Take it into consideration as a severe national crisis.

গত শুক্রবার একই দিনে ঢাকাসহ দেশের আট জেলায় সড়ক দুর্ঘটনায় র্যাবের দুই সদস্যসহ মোট ১২ জন মানুষের প্রাণ হারানোর একাধিক সংবাদ ছাপা হয়েছে পরদিনের প্রথম আলোয়।
The multiple reports about deaths of 12 ppeoples including two RAB members due to road accident in last Friday were published in prothom alo the following day.

যেসব ঘটনা প্রায় প্রতিদিন ঘটে, প্রথাগত সাংবাদিকতায় সেগুলো সংবাদমূল্য হারায়।
The incidents which occur about every day loses its utility to be printed.

কিন্তু মানুষের প্রাণহানির মতো বড় সংবাদ তো উপেক্ষণীয় হতে পারে না।
But the big news such as of deaths can’t be negligible.

তাই আমাদের সংবাদমাধ্যম সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণহানির খবর কমবেশি গুরুত্বের সঙ্গে পরিবেশন করে।
So our newsmedia put out the news of road accidents with in gross importance.

কিন্তু এই গুরুতর জাতীয় সমস্যাটি সমাধানের সক্রিয় উদ্যোগ নেওয়া যাদের দায়িত্ব, সরকারের সেই কর্তৃপক্ষগুলো এটাকে যথেষ্ট গুরুত্ব দেয় না।
But the responsible authorities which have to take initiative to solve this crisis don’t overrate it.

এমনকি সড়ক দুর্ঘটনায় প্রতিবছর কত মানুষ হতাহত হয়, তারও কোনো নির্ভরযোগ্য তথ্য সরকারি তরফে পাওয়া যায় না।
Even it isn’t estimated that how many peoples suffer from it.

পুলিশের সূত্র থেকে যে তথ্য দেওয়া হয়, তা এত কম যে দেশি ও আন্তর্জাতিক বিভিন্ন সংস্থার দেওয়া হিসাবের সঙ্গে তা অত্যন্ত অসামঞ্জস্যপূর্ণ বলে মনে হয়।
The information given by police is so low that it seems asymmetric to compared to the information of various domestic and international organizations.

যেমন, গত বছর ২০ অক্টোবর প্রথম আলোতে প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে জাতিসংঘের বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার তথ্য ছিল, ২০১২ সালে বাংলাদেশে সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত হয়েছে ২১ হাজার ৩১৬ জন।
Such that,WHO estimated that there were 21316 peoples died in Bangladesh in 2012 due to road accidents,which was reported at prothom alo on 20 October,2015.

আর বাংলাদেশ সরকার দাবি করেছে, সে বছর নিহতের সংখ্যা মাত্র ২ হাজার ৫৮৩ জন।
But the government of Bangladesh claimed that there were only 2583 peoples had died in that year.

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংগঠন বলেছিল, সরকারের এই হিসাব করা হয়েছে দুর্ঘটনার পর পুলিশের মামলার সংখ্যার ভিত্তিতে।
WHO said that this information of government was based on the police case which had been filed after accidents.

যাত্রী কল্যাণ সমিতি নামে একটি বেসরকারি সংগঠনের দেওয়া হিসাবে ২০১৫ সালে দেশে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছে ৮ হাজার ৬৪২ জন।
According to estimation of a private organization named jatri kollan somiti,in 2015 there were 8642 peoples died due to road accidents.

বুয়েটের দুর্ঘটনা গবেষণা ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক তানভীর হাসানের ধারণা, এ দেশে প্রতিবছর সড়ক দুর্ঘটনায় সাত-আট হাজার মানুষ মারা যায়।
Professor Tanvir hasan,director of the accident research institute of BUET figures out that every year 7-8 thousand peoples die due to road accidents.

২০১১ সালে তৎকালীন যোগাযোগমন্ত্রী বলেছিলেন, এ দেশে বছরে ১২ থেকে ১৪ হাজার মানুষ সড়ক দুর্ঘটনায় প্রাণ হারায়।
In 2011,the then minister for communication said that there are 12-14 thousand peoples die due to road accidents.

সড়ক দুর্ঘটনা সম্পূর্ণভাবে বন্ধ করা যাবে না, কিন্তু কমানো অবশ্যই সম্ভব।
Road accidents can’t be eleminated quites but it must be possible to reduce.

কী কী করতে হবে, সে সম্পর্কেও প্রচুর সুপারিশ অসংখ্যবার করেছেন বিশেষজ্ঞসহ বিভিন্ন সমিতি-সংগঠন।
Many organizations and experts have suggested many times that what measures should be taken.
প্রয়োজন—এটা যে একটা গুরুতর জাতীয় সমস্যা, তা উপলব্ধি করা।
It’s needed to realise that this is a severe national problem.

 

   
   

0 responses on "(৩১/০১/১৬) প্রথম আলোর সম্পাদকীয় পাতা থেকে"

Leave a Message

Certificate Code

সবশেষ ৫টি রিভিউ

eShikhon Community
top
© eShikhon.com 2015-2022. All Right Reserved